ইংলিশ ফর এভ্রিওয়ান

- বনানী ব্রাঞ্চ

  • কোর্সের মেয়াদ : 3 Months
  • কোর্স ফী : ৩০০০
  • ক্লাসের সময় : রবিবার ও মঙ্গলবার - রাত ১০টা - ১২টা
  • ক্লাস শুরুর তারিখ : ২৯শে জানুয়ারী ২০২৩

অভিজ্ঞতা অর্জন হয় দক্ষতা বৃদ্ধির মাধ্যমে। আর দক্ষতাই পারে সাফল্যের শিখরে পৌঁছে দিতে। তাই সময় নষ্ট না করি, দক্ষতা বৃদ্ধি করি।

কোর্সের বিস্তারিত সম্পর্কে জানতে আমাদের নিচের ফর্মটি পূরণ করুন

ইংলিশ ফর এভ্রিওয়ান

ফ্রিল্যান্সার হিসেবে কাজ করার জন্য কিংবা যেকোনো জবের জন্যেই ইংরেজি ভাষা জানার বিকল্প নেই। আমরা ইংরেজিতে পিছিয়ে যাওয়ার প্রধান কারন হচ্ছে ভয়। কিন্তু এই ভয়কে জয় করে সামনে এগিয়ে যাওয়ার জন্যই এই ইংলিশ কোর্সটি সাজানো হয়েছে।

কোর্স ডিটেলস ভিডিও

100

গ্রাডুয়েটস

48 ঘন্টা

ক্লাস আওয়ার্স

24

লেকচার

২৪/৭

অনলাইন সাপোর্ট

আমাদের কোর্স কারিকুলাম

এই কোর্সে শিক্ষার্থীদের একদম বেসিক থেকে ইংরেজি শেখানো হবে। শিক্ষার্থীদের ইংরেজি গ্রামারের noun, pronoun, verb এর মতো বেসিক কিন্তু গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলো সুন্দরভাবে বোঝানো হবে। এছাড়াও preposition, phrase এর মতো বিষয়গুলোও প্র্যাকটিকালি শেখানো হবে। শিক্ষার্থীদের প্রফেশনালি উন্নত করে তোলার জন্য স্পিকিং এবং রাইটিং সেশন রাখা হয়েছে। তাঁরা যেনো জড়তা কাটিয়ে সুন্দরভাবে নিজেদের মনের ভাব প্রকাশ করতে পারেন, তাই চেষ্টা করা হবে। এছাড়াও বিভিন্ন প্র্যাকটিকাল বিষয়ের উপর রাইটিং প্র্যাকটিস করানো হবে

  • Grammar
  • Speaking
  • Writing
  • Listening
  • Vocabulary
  • ০%
  • ২৫%
  • ৫০%
  • ৭৫%
  • ১০০%

Grammar

এই কোর্সের একদম শুরুতেই থাকবে গ্রামার। শিক্ষার্থীদের শেখানো হবে noun, pronoun, verbs, phrase, sentence এর মতো বিষয়গুলো। সম্পূর্ণ প্র্যাকটিকালি পড়ানো হবে সকল বিষয়গুলো, এতে করে শিক্ষার্থীরা খুব সহজেই এবং সুন্দরভাবে বুঝতে পারবেন। প্রতিটি বিষয় জব সেক্টর, পড়াশুনা এবং ফ্রিল্যান্সিং এর সাথে সম্পর্ক তৈরি করে শেখানো হবে যাতে করে যে কেউ এই সকল সেক্টরগুলোতে ভালোভাবে কাজ করতে পারেন।

Speaking

ইংরেজি ভাষা জানা যেমন জরুরী, তেমনি কাজের প্রয়োজনে ইংরেজিতে কথা বলতে পারাও দরকারি। অফিস, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বা ফ্রিল্যান্সিং, যেখানেই যান না কেনো, ইংরেজিতে কথা বলার প্রয়োজন হয়। এই কোর্সটিতে থাকবে স্পিকিং সেশন। শিক্ষার্থীদের লাইভ ক্লাসে বিভিন্ন টপিক এর উপর কথা বলা প্র্যাকটিস করানো হবে যাতে করে কাজের প্রয়োজনে তাঁরা সুন্দরভাবে, গুছিয়ে কথা বলতে পারেন।

Writing

কাজের প্রয়োজনে আমাদের প্রতিনিয়ত ইংরেজিতে লিখতে হয়। যারা ফ্রিল্যান্সিং করেন, প্রতিনিয়ত ক্লায়েন্ট এর সাথে লিখে কথা বলতে হয়। অনেকক্ষেত্রেই ভালো ইংরেজি জানা না থাকার কারনে, ভুল মেসেজ চলে যায়। ভুল কমিউনিকেশন কখনোই কাজের ক্ষেত্রে ভালো না। এই কোর্সে শিক্ষার্থীদের রাইটিং প্র্যাকটিস করানো হবে যাতে করে তাঁরা কাজের প্রয়োজনে, শুদ্ধ ভাষায় ইংরেজি লিখতে পারেন।

Listening

যেকোনো যোগাযোগ এর ক্ষেত্রে আগে ভালোমতো কথা শুনতে হয়। যখন অন্যের কথা ভালোমতো বোঝা যায়, তখন ভালোভাবে উত্তর দেয়া যায়, কাজ করা যায়। এই কোর্সে থাকবে লিসেনিং সেশন যার মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা নিজেদের ইংরেজিতে দক্ষতা বৃদ্ধি করতে পারবেন। ইংরেজিতে যোগাযোগ করতে আমরা সবচেয়ে বেশী সমস্যায় পড়ি লিসেনিং এর ক্ষেত্রে। কারন আমরা বুঝতেই পারিনা অন্যে কি বলছে। এই কোর্সের প্র্যাকটিকাল সেশনগুলো শিক্ষার্থীদের সাহায্য করবে লিসেনিং এর দক্ষতা বাড়াতে।

Vocabulary

বলা হয়ে থাকে ইংরেজিতে ভালো করার জন্য ভোকাবুলারি জানার বিকল্প নেই। সেই ভালো ইংরেজি ভাষা ব্যবহার করতে পারে, যার ভোকাবুলারি জ্ঞান অনেক বেশী। এই কোর্সের পুরোটা সময় জুড়ে আমরা ভোকাবুলারি শিখবো যা পরবর্তীতে আমাদের অনেক কাজে আসবে।

কোর্স মেন্টর

গাজি ওয়াফা আকবর

মেন্টর - English Communication

প্রশিক্ষণ দিয়েছেন : 300+

গাজি ওয়াফা আকবর ইংলিশ মেন্টর হিসেবে কাজ করছেন প্রায় ৩ বছর ধরে। তিনি শিক্ষকতা করেছেন ইংলিশ মিডিয়াম স্কুলে, যেখানে প্রায় ৩০০ এর অধিক শিক্ষার্থীকে দক্ষতার সাথে প্রশিক্ষন দিয়েছেন। ইংরেজিকে ভালোবাসেন, মানুষকে শেখাতে পছন্দ করেন, তাই কাজ করছেন শিক্ষক হিসেবে। শিখবে সবাইতে যোগদান করেছেন ফ্রিল্যান্সিং নিয়ে কাজ করছেন বা করতে চাচ্ছেন, এমন শিক্ষার্থীদের ইংরেজি শেখানোর জন্য। ইতোমধ্যেই বেশ দক্ষতার সাথে প্রায় ১০০ এর বেশী শিক্ষার্থীদের ক্লাস নিয়েছেন। উনার অভিজ্ঞতা থেকে শেয়ার করেছেন কিভাবে ভালোভাবে যোগাযোগ দক্ষতা বাড়ানো যায়, ক্লায়েন্টদের সাথে সুসম্পর্ক গড়ে তোলা যায়।

কোর্সটা কি আপনার জন্য?

আপনি কি একজন শিক্ষার্থী?

পড়াশোনার পাশাপাশি আইটি কাজের বাস্তবমুখী শিক্ষা একজন শিক্ষার্থীর বর্তমান এবং ভবিষ্যতকে উজ্জ্বল করবে এবং বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা বা কাজের সুযোগ করে দিবে এতে কোন সন্দেহ নেই। বরং পড়াশোনার পাশাপাশি অনেক শিক্ষার্থী বিভিন্ন খন্ডকালিন কাজ করতে চান। আইটি কোন কাজে দক্ষ হলে একজন শিক্ষার্থী পড়াশোনার পাশাপাশি আন্তর্জাতিক মার্কেটে কাজ করতে পারেন এবং নিজের পড়াশোনার খরচ নিজেই বহন করতে পারেন।

আপনি কি একজন গৃহিণী?

অনেক শিক্ষিত গৃহিণী গৃহস্থালির কাজের পাশাপাশি কোন কাজ করে আয় করতে চান। কিন্তু তারা চাইলেও নানা সমস্যার কারণে কোন চাকুরী বা ব্যাবসায় যুক্ত হতে পারেন না। তাদের জন্য ফ্রিল্যান্সিং হতে পারে সবচেয়ে উপযুক্ত একটি মাধ্যম। একজন গৃহিণী আইটি দক্ষতা অর্জন করে প্রতিদিন বা সুবিধা মত সময়ে কাজ করে আয় এবং নিজের একটি পরিচয় তৈরি করতে পারেন।

আপনি কি একজন চাকুরীজীবী?

বর্তমানে চাকুরী করে অনেকেই হয়তো নিজের সকল প্রয়োজন মেটাতে হিমিশিম খাচ্ছে। অনেকে হয়তো চাকুরীই করতে চাচ্ছেন না, নিজের কিছু করতে চাচ্ছেন। অনেকে হয়তো চাকুরীর পরের সময় গুলো কাজে লাগাতে চাচ্ছেন। প্রতিদিন ৩/৪ ঘণ্টা সময় দিলে শিখবে সবাই এর যে কোন আইটি কোর্সের মাধ্যমে কাজ শিখে ফ্রিল্যান্সিং করে আপনার বাড়তি আয়ের চাহিদা মেটানো সম্ভব।

আপনি কি একজন উদ্যোক্তা?

আপনি যে কোন ব্যাবসা করেন না কেনো, আপনার বিভিন্ন আইটি কাজের প্রয়োজন হবেই। আপনার নিজের যদি ভালো কাজের আইডিয়া থাকে তবে সেটা অন্যের মাধ্যমে সফলভাবে সম্পন্ন করতে পারবেন। কিন্তু আপনি নিজে যদি কোন আইটি দক্ষতা না রাখেন, তাহলে বর্তমান সময়ে যে কোন ব্যাবসা বা নতুন কোন আইডিয়া নিয়ে কাজ করলে সাফল্য অর্জন করা খুবই কঠিন হয়ে যাবে।

শিক্ষার্থীদের জন্য বিশেষ সাপোর্ট ব্যাবস্থা

শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন টপিক ক্লাসের পরেও আরো বিস্তারিত জানতে চায়। ক্লাসে দেয়া এ্যাসাইনমেন্ট করার সময় কোন জায়গায় আটকে যেতে পারে। এই সময় একটু সাপোর্ট হলে তারা কাজ সফলভাবে সম্পন্ন করতে পারেন। আবার কোর্স শেষে ক্লায়েন্ট এর কাজ করার সময়েও সাপোর্ট প্রয়োজন হয়। তাই শিখবে সবাই তার সকল শিক্ষার্থীদের জন্য বিশেষ সাপোর্ট ব্যাবস্থার আয়োজন রেখেছে। এই সাপোর্ট লাইফটাইম সম্পুর্ন বিনামূল্যে প্রদান করা হবে।

অনলাইন লাইভ সাপোর্ট

প্রতিদিন নির্দিষ্ট সময়ে শিক্ষার্থীরা নির্ধারিত সাপোর্ট লিঙ্কে ক্লিক করে সাপোর্ট প্ল্যাটফর্মে জয়েন করতে পারবেন এবং সেখানে মেন্টর থাকবেন লাইভ সাপোর্ট দেওয়ার জন্য। নিজের স্ক্রিন শেয়ার করে বা স্কাইপ কলের মাধ্যমেও মেন্টর সাহায্য করবে।

অফলাইন সাপোর্ট

শিখবে সবাই এর যে কোন শিক্ষার্থী, সে অনলাইন লাইভ কোর্সের হোক কিংবা অফলাইন কোর্সের হোক। শিখবে সবাই এর যে কোন ক্যাম্পাসে সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫ টা পর্যন্ত সাপোর্টের জন্য আসতে পারবেন। ক্যাম্পাসে সাপোর্ট সেন্টারে বসে মেন্টর এর কাছ থেকে সরাসরি কাজ বুঝে নেওয়া যাবে।

আমাদের শিক্ষার্থীদের সফলতার গল্প

আমাদের শিক্ষার্থীরা কোথায় কাজ করেন?

সফল ভাবে স্কিল্ল ডেভ্লপমেন্ট এবং সফট স্কিল এর পরে আমাদের স্টুডেন্টরা পপুলার অনলাইন মারকেটপ্লেস আপওয়ার্ক (Upwork), ফাইবার (Fiverr), পিপল-পার-আওয়ার (PPH) সহ আরও অনেক জায়গায় সফল ভাবে ফ্রিলাঞ্চিং এর কাজের সাথে জড়িত। এছারাও লোকাল মার্কেটে ভালো পরিমাণ কাজের সাথেও জড়িত আছেন অনেকেই। আমাদের কোর্স গুলো ঠিক এমন ভাবে গঠিত যাতে একজন স্টুডেন্টরা অনলাইন এবং অফলাইন মার্কেটের জন্য নিজেদেরকে প্রস্তুত করে নিতে পারেন।

ফাইভার

নতুন শিক্ষার্থীদের জন্য ফাইভার মার্কেটপ্লেস খুবই জনপ্রিয়। কারন এখানে নতুনরা সহজেই ছোট ছোট কাজ দিয়ে নিজের ফ্রিল্যান্সিং ক্যারিয়ার শুরু করতে পারেন। এখানে কাজের নির্দিষ্ট প্যাকেজ বা গিগ করা থাকে যা ক্ল্যায়েন্ট এবং ফ্রিল্যান্সার উভয়ের জন্যই সুবিধাজনক।

আপওয়ার্ক

আপওয়ার্ক একটি বড় আন্তর্জাতিক কাজের বাজার। এখানে বড় বড় কোম্পানি গুলো আউটসোর্সিং করে কাজ করায়। আমাদের অনেক শিক্ষার্থী এই মার্কেটে টপ রেটেড ফ্রিল্যান্সার হিসেবে কাজ করছেন। তুলনামূলক এখানে কাজের মূল্য একটু বেশী পাওয়া যায়।

রিমোট জব

বিভিন্ন মার্কেটপ্লেসে ভালো মানের কাজ সরবরাহ করার ফলে আমাদের শিক্ষার্থীদের সাথে ক্লায়েন্ট এর অনেক ভালো সম্পর্ক তৈরি হয়ে যায়। মার্কেটপ্লেসের বাইরেও সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে অনেক ক্লায়েন্ট এর কাজ করে থাকেন আমাদের শিক্ষার্থীরা। এর ফলে অনেক ক্ল্যায়েন্ট মাসিক চুক্তি করে কাজ করায় যেটা চাকুরীর মতো।

লোকাল জব

আন্তর্জাতিক বাজার ছাড়াও বাংলাদেশেও কিন্তু আইটির বিভিন্ন কাজ থাকে। মূলত দেশীয় ছোট এবং মাঝারী ব্যাবসায়ি প্রতিষ্ঠান গুলো আউটসোর্সিং করেই কাজ করায়। আমাদের অনেক শিক্ষার্থী এরকম লোকাল অনেক কাজ করে থাকেন। এখন মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে সহজেই পেমেন্ট নেওয়া যায়। আবার চাইলে সরাসরি কথা বলেও অনেকে লোকাল বিভিন্ন প্রজেক্টে কাজ করছেন। এখানে সুবিধা হচ্ছে কাউকে কোন কমিশন দিতে হয় না যেটা উপরের সকল মাধ্যমেই প্রযোজ্য।

নিউজ কাভারেজ

প্রতিষ্ঠার পর থেকে আইটি সেক্টরে দক্ষতা উন্নয়নে সফলতার সাথে কাজ করছে দেশের শীর্ষস্থানীয় ফ্রিল্যান্সিং প্রশিক্ষন ইন্সটিটিউট শিখবে সবাই। এই দীর্ঘ পথচলায় প্রতিষ্ঠানটি পাশে পেয়েছে দেশের স্বনামধন্য প্রায় সকল সংবাদমাধ্যমকে। শিখবে সবাই এর পাশে থাকার জন্য এবং সর্বস্তরের মানুষের কাছে পৌঁছে দেয়ার জন্য গনমাধ্যমের প্রতি রইলো কৃতজ্ঞতা।

কিভাবে শুরু করবেন?

শিখবে সবাইতে ভর্তি হতে ইচ্ছুক অনেকেই ভাবেন কিভাবে ভর্তি হবেন, ক্লাস করবেন, ক্লাসের প্রকৃয়াগুলো কি। এই প্রকৃয়াগুলো একদম সহজ এবং সুন্দর করে গড়ে তুলেছে শিখবে সবাই। আপনাদের বোঝার সুবিধার্থে এখানে সুন্দরভাবে তুলে ধরে হয়েছে।

আপনার পছন্দের কোর্সে পেমেন্ট করুন

আপনি যে কোর্সে ভর্তি হতে ইচ্ছুক, তার জন্য শুরুতেই পেমেন্ট করতে হবে। এই পেমেন্ট আপনি শিখবে সবাই এর যেকোনো অফিসে এসে করতে পারবেন। পাশাপাশি শিখবে সবাই এর অফিশিয়াল ওয়েবসাইট থেকে পেমেন্ট গেটওয়ে ব্যবহার করতে পারবেন। এছাড়াও আপনি বিকাশ, রকেট অথবা নগদ ব্যবহার করেও বাসায় বসে পেমেন্ট করে মানি রিসিপ্ট পেতে পারেন। ঘরে-বাহিরে যেখানেই থাকেন না কেনো, খুব সহজেই আপনি এই প্রকৃয়া সম্পন্ন করতে পারেন।

আপনার ইমেইল চেক করুন

আপনি যদি ওয়েবসাইট অথবা বিকাশ/নগদ/রকেট ব্যবহার করে পেমেন্ট করেন, তাহলে ইমেইলে আপনার মানি রিসিপ্ট চলে যাবে। এছাড়াও আপনার ব্যাচের জন্য নির্ধারিত ফেসবুক গ্রুপ, ক্লাসের লিঙ্ক ইমেইলে দিয়ে দেয়া হবে। তাই, নিয়মিত ইমেইল চেক করুন।

নির্দিষ্ট সময়ে ক্লাস করুন

আপনাকে ইমেইলে দেয়া নির্ধারিত তারিখেই ক্লাস শুরু হবে। কোর্স করে ভালো কিছু শিখতে এবং সফল ফ্রিল্যান্সার হিসেবে গড়ে উঠতে নিয়মিত ক্লাস এবং এসাইনমেন্ট এর বিকল্প নেই। তাই, মেন্টর নির্দেশনা মেনে চলতে চেষ্টা করুন এবং নিয়মিত ক্লাস করুন।

কম্পিউটারের নুন্যতম যোগ্যতা

ইংরেজি শিখতে আগ্রহী যেকেউ এই কোর্সে জয়েন করতে পারবেন।

যোগাযোগ করুন

আপনার কোন প্রশ্ন থাকলে বা কোন কিছু জানার থাকলে নির্দিধায় নিচের ফর্মটি পূরণ করুন। আমাদের দক্ষ প্রতিনিধি আপনাদের সকল প্রশ্নের সঠিক তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করবেন। মাঝে মধ্যে আমাদের প্রতিনিধি রা ব্যাস্ত থাকার কারণে আপনার প্রশ্নের উত্তর পেতে দেরি হলে আমরা তার জন্য আন্তরিক ভাবে দুঃখিত। ততক্ষণে আপনি আমাদের ফেইসবুক পেইজ এবং ফেইসবুক গ্রুপ দেখতে থাকুন।